এবার বিয়ের পাশাপাশি জন্মদিনেও করের প্রস্তাব আইসিএমএবি’র

কর
  © ফাইল ছবি

এর আগে বিয়ে করলে কর দেওয়ার বিধান রাখে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন। প্রথম বিয়ের ক্ষেত্রে ১০০ টাকা কর হলেও দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ বিয়ের ক্ষেত্রে যথাক্রমে ৫ হাজার, ২০ হাজার এবং ৫০ হাজার টাকা কর নির্ধারণ করা হয়। এবার হোটেল বা কমিউনিটি সেন্টারে বিয়ে ও জন্মদিনের মতো সামাজিক অনুষ্ঠান আয়োজনে জনপ্রতি ৫০ টাকা কর আদায়ের প্রস্তাব দিয়েছে ইনস্টিটিউট অব কস্ট অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্ট্যান্টস অব বাংলাদেশ (আইসিএমএবি)।

সম্প্রতি জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) কাছে দেওয়া বাজেট প্রস্তাবে এমন কথা বলেছে সংস্থাটি।

আইসিএমএবি বলেছে, ব্যবসায়িক উদ্দেশ্য ব্যতীত অন্য কোনো সামাজিক অনুষ্ঠান, বিয়ে, বৌভাত, জন্মদিন বা বিবাহবার্ষিকীতে ১০০ জনের বেশি অতিথি আপ্যায়নে হোটেল, রেস্তোরাঁ বা কমিউনিটি সেন্টার বুকিং দেওয়ার পূর্বে অতিথি প্রতি ৫০ টাকা হারে অগ্রিম আয়কর আরোপের বিধান করা যেতে পারে। বর্তমানে এসব ক্ষেত্রে অগ্রিম আয়করের বিধান নেই। এটি করা হলে এমন করদাতাদের আয়করের আওতায় আনা সম্ভব হবে। ফলে কর আদায় বৃদ্ধি পাবে।

এ ছাড়া কর আদায় বাড়াতে আরও বেশ কয়েকটি প্রস্তাব দিয়েছে আইসিএমএবি। এর মধ্যে আরেকটি প্রস্তাব হলো, কোম্পানি আইন, ১৯৯৪ অথবা সোসাইটিস রেজিস্ট্রেশন অ্যাক্ট, ১৮৬০–এর অধীন নিবন্ধিত ক্লাবের পরিচালনা পর্ষদের কোনো পদে নির্বাচনে অংশগ্রহণের উদ্দেশ্যে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করার আগে ২৫ হাজার টাকা অগ্রিম আয়কর পরিশোধ করতে হবে।

এ বিষয়ে আইসিএমএবি প্রতিনিধিদলের সদস্য সাঈদ আবদুর রহমান বলেন, দেশের অনেক মানুষ করের আওতায় না থাকলেও অনেক অর্থ খরচ করেন। মূলত তাদের করের আওতায় আনতে আমদের এই প্রস্তাব। দেশের কর–জিডিপির অনুপাত কম। সেটা বাড়াতে হলে এমন লোকজনকে কিছুটা হলেও করের আওতায় আনতে হবে।


মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ