“কিলোতে বাস ভাড়া ৩ পয়সা কমানো তামাশার শামিল”

ভাড়া
  © বাংলাদেশ মোমেন্টস

প্রতি কিলোমিটারে বাস ভাড়া মাত্র ৩ পয়সা কমানো যাত্রী সাধারণের সঙ্গে তামাশার শামিল বলে মনে করছে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি। সংগঠনটির দাবি, দফায় দফায় জ্বালানি তেলের দাম কমলেও হিস্যা অনুযায়ী বাস ভাড়া কমানোর পরিবর্তে প্রতি কিলোমিটারে মাত্র ৩ পয়সা কমিয়ে দেশের যাত্রী সাধারণের সঙ্গে তামাশা করছে সরকার।

সোমবার (১ এপ্রিল) দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ কথা বলেন বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, আসন্ন ঈদযাত্রায় দেশের বিভিন্ন রুটে যাতায়াতকারী অধিকাংশ বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের নৈরাজ্য শুরু হয়েছে। এমন সময়ে ২ দফা জ্বালানি তেলের দাম কমানোর পর সরকার আজ বাস ভাড়া প্রতি কিলোমিটারে মাত্র ৩ পয়সা কমানোর ঘোষণা দিয়েছে। যা কোনোভাবেই কার্যকরযোগ্য নয়।

বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব বলেন, এর আগে ২০১১ সালেও বাসের ভাড়া ২ পয়সা কমিয়েছিল সরকার। এর সুফল সাধারণ যাত্রীরা পায়নি। এরপর ২০১৬ সালেও জ্বালানির তেলে মূল্য কমানোর কারণে বাসের ভাড়া ৩ পয়সা কমানোর সুফল থেকে দেশের যাত্রীসাধারণ বঞ্চিত হয়েছে। ঠিক একই পন্থায় বাস মালিকদের বিশেষ সুবিধা দিতে এবারো বাস ভাড়া ৩ পয়সা কমানোর ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। জ্বালানি তেলের মূল্য কমানোর সুফল বাস ও অন্যান্য পরিবহনের মালিকেরা ভোগ করলেও বঞ্চিত হবে দেশের জনগণ।

বিবৃতিতে অনতিবিলম্বে উল্লেখযোগ্য হারে জ্বালানি তেলের দাম কমিয়ে জনসাধারণের সামর্থ্য বিবেচনায় গণপরিবহণ ভাড়া উল্লেখযোগ্য হারে কমানোর দাবি জানানো হয়।

এদিকে বাস ভাড়া ৩ পয়সা কমানোর ঘোষণার পর সাধারণ যাত্রীদের সঙ্গে কথা হয়। আরিফুল ইসলাম নামের এক যাত্রী বলেন, ভাড়া কমানোর সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানাই। তবে পরিমাণটা বাড়ানো দরকার। এই যে ভাড়া কমানোর ঘোষণা দিয়েছে, এটা আমাদের সঙ্গে তামাশা।

সপ্তাহে ৬ দিন রাজধানীর সাইনবোর্ড থেকে নিউমার্কেট যাতায়াত করেন মনোয়ার হোসেন নামের এক যাত্রী। তিনি বলেন, আমাদের সঙ্গে মজা লয়! ভাড়া বাড়ানোর সময় ১০ টাকা করা হয়, আর কমানোর সময় কিলোতে ৩ পয়সা!

আবে হায়াত মোস্তফা জালাল মুহিউদ্দীন নামের এক যাত্রী বলেন, ৩ পয়সা ভাড়া কমানো যাত্রীদের সাথে প্রহসন।

উল্লেখ্য, দূরপাল্লার বাসে কিলোমিটারপ্রতি ভাড়া ২ টাকা ১৫ পয়সা থেকে কমিয়ে ২ টাকা ১২ পয়সা।  ঢাকা-চট্টগ্রাম মহানগরীতে ২ টাকা ৪৫ পয়সা থেকে কমিয়ে ২ টাকা ৪২ পয়সা করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

২০২২ সালের আগস্টে ডিজেলের দাম লিটারে ৩৪ টাকা বাড়লে, দূরপাল্লার ভাড়া বাড়ে কিলোমিটারে ৪০ পয়সা। কয়েক সপ্তাহ পর ডিজেলের দাম ৫ টাকা কমে ১০৯ টাকা হলে ভাড়া ৫ পয়সা করে কমানোর সিদ্ধান্ত হয়।


মন্তব্য