দাদীর সঙ্গে সখ্য করে নবজাতক নিয়ে পালালেন নারী

ঢামেক
  © সংগৃহীত

ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল থেকে দুই জমজ নবজাতকের একটিকে নিয়ে পালিয়ে গেছে অজ্ঞাতপরিচয় এক নারী। আজ মঙ্গলবার (০৪ জুন) ঢামেকের ২১২ নম্বর ওয়ার্ডের প্রবেশপথে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, গত সোমবার (৩ জুন) রাতে ঢাকার ধামরাই উপজেলার কমলাপুর এলাকার শরিফুলের স্ত্রী সুখী নামের এক নারীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার (৪ জুন) সিজারের মাধ্যমে দুই জমজ সন্তানের জন্ম দেন সুখী। 

তাদের দাবি, অপরিচিত এক নারী সখ্য করার পর ২১২ ওয়ার্ডে প্রবেশের রাস্তা থেকে জমজ দুই মেয়ের মধ্যে একটি বাচ্চা নিয়ে পালিয়ে যান।

বিকেলে ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) বাচ্চু মিয়া বলেন, আমরা হাসপাতালের ২১২ ওয়ার্ডে অবস্থান করছি। এক নারী ২১২ লেবার ওয়ার্ডে আজকে সিজারের মাধ্যমে দুটি জমজ সন্তান জন্ম দেন। জন্মের পরপরই নবজাতক দুটি তাদের দাদির কোলে ছিল। তিনি ২১২ নম্বর ওয়ার্ডের প্রবেশ পথের বারান্দায় নবজাতক নিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন। এক পর্যায়ে বোরখা পরা এক নারী নবজাতকের দাদির সঙ্গে সখ্য গড়েন। পরে কৌশলে একটি নবজাতককে কোলে নিয়ে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান।

বাচ্চু মিয়া জানান, বিষয়টি হাসপাতাল পরিচালককে জানানো হয়েছে। সিসিটিভির ক্যামেরা পর্যবেক্ষণ করে চোরকে শনাক্তের চেষ্টা করা হচ্ছে।

নবজাতকের দাদি হাসিনা বলেন, বোরখা পরা এক নারী ২১২ ওয়ার্ডে প্রবেশপথের বারান্দায় এসে আমার সঙ্গে গল্প জুড়ে দেন। একপর্যায়ে আমার কোল থেকে একটি বাচ্চা নিয়ে তিনি পালিয়ে যান।

ঢামেক হাসপাতালে পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আসাদুজ্জামান বলেন, হাসপাতালের লেবার ওয়ার্ড থেকে ভূমিষ্ঠ হওয়া একটি নবজাতককে তার স্বজনরা খুঁজে পাচ্ছেন না। আমরা হাসপাতালে সিসিটিভির ফুটেজ দেখছি। পুলিশ-প্রশাসন ও অন্যান্য সবাই এ বিষয়ে কাজ করছে।

শাহবাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শাহ আলম জানান, বিস্তারিত ঘটনা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে, বোরখা পরা এক নারী বাচ্চা নিয়ে বেরিয়ে যাচ্ছেন। বাচ্চার বাবার সঙ্গে বিস্তারিত কথা বলে আরও জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।


মন্তব্য