এলএনজি কেনায় ব্যয় বাড়ল

এলএনজি
  © ফাইল ছবি

আন্তর্জাতিক বাজারে তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের (এলএনজি) দাম বেড়েছে। এজন্য গত কয়েক মাস প্রতি ইউনিট এলএনজি ১০ ডলারে কিনলেও চলতি মাসে তা ৩ ডলার বেশি দিয়ে কিনতে হচ্ছে।

মঙ্গলবার সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত ও অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে ওই দরে এলএনজি কেনার একটি প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। বৈঠক শেষে প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের আইন অনুবিভাগের অতিরিক্ত সচিব জাহেদা পারভীন।

জাহেদা পারভীন জানান, ক্রয় কমিটির বৈঠকে গানভর সিঙ্গাপুরের কাছ থেকে প্রতি ইউনিট ১২ দশমিক ৯৭ ডলার দরে মোট ৬০১ কোটি ৬৪ লাখ পাঁচ হাজার ১৮৭ টাকায় এক কার্গো এলএনজি কেনার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে, যা আগের কেনাকাটায় প্রতি ইউনিটের দাম ছিল ১০ দশমিক ৩০ ডলার।

তিনি জানান, এদিন টিসিবির জন্য স্থানীয়ভাবে উন্মুক্ত দরপত্র পদ্ধতিতে ৬ হাজার টন মসুর ডাল কেনার একটি প্রস্তাব অনুমোদন পেয়েছে। প্রতি কেজি ১০০ টাকা ৭৯ পয়সা ধরে এতে মোট ব্যয় হবে ৬০ কোটি ৪৭ লাখ ৪০ হাজার টাকা। এটি সরবরাহ করবে বগুড়ার রয় এগ্রোফুড লিমিটেড।

মরক্কো থেকে ১৩৪ কোটি ৫২ লাখ ৫৭ হাজার ৭৫০ টাকায় ৩০ হাজার টন টিএসপি সার কেনার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রতি টনের দাম ধরা হয়েছে ৩৭৯ দশমিক ৫০ ডলার। সৌদি আরব থেকে ২৪৪ কোটি ৬৫ লাখ ৬৬ হাজার টাকায় ৪০ হাজার টন ডিএপি সার কেনার একটি প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রতি টনের দাম ধরা হয়েছে ৫১৯ ডলার।

এদিকে টিসিবির বিভিন্ন পণ্য কেনার দরপত্রের সময়সীমা হ্রাস করার একটি প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। তাতে উন্মুক্ত দরপত্রের ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক এবং স্থানীয় পর্যায় থেকে কেনাকাটার ক্ষেত্রে সময়সীমা হ্রাস পাবে। সে অনুযায়ী, আন্তর্জাতিক দরপত্রের ক্ষেত্রে সময়সীমা ৪২ দিন থেকে কমিয়ে করা হয়েছে ১৫ দিন। আর স্থানীয় দরপত্রের সময়সীমা ২৮ দিন থেকে কমিয়ে করা হয়েছে ১৪ দিন।


মন্তব্য