দেশের স্বার্থেই বিদেশি ঋণ নিতে হয়: ড. হাছান মাহমুদ

পররাষ্ট্রমন্ত্রী
  © ফাইল ছবি

দেশের স্বার্থেই বিদেশি ঋণ নিতে হয় বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, এবারের বাজেট বাস্তবায়নে বিদেশি নির্ভরতা কমিয়ে আনা হয়েছে। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে বিদেশি ঋণ নিতে হচ্ছে। দেশের স্বার্থেই বিদেশি ঋণ নেওয়া হচ্ছে।

আজ রবিবার (৩০ জুন) ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেট পাসের পর জাতীয় সংসদ লবিতে এক প্রতিক্রিয়ায় সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পৃথিবীর বহু দেশেই অফশোর অ্যাকাউন্টে টাকা রাখার পদ্ধতি রয়েছে। আমরাও এটা শুরু করতে যাচ্ছি। এতে যেকোনো বিদেশি কোম্পানি বাংলাদেশে অফশোর অ্যাকাউন্ট খুলে টাকা রাখতে পারবে।

এর আগে জাতীয় সংসদে ২০২৪-২৫ অর্থবছরের জন্য ৭ লাখ ৯৭ হাজার কোটি টাকার বাজেট পাস হয়েছে। সংসদ সদস্যরা টেবিল চাপড়িয়ে নির্দিষ্টকরণ বিল-২০২৪ পাসের মাধ্যমে ২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেট অনুমোদন করেন। আগামীকাল সোমবার (১ জুলাই) থেকে তা কার্যকর হবে।

অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী গত ৬ জুন জাতীয় সংসদে ‘টেকসই উন্নয়নের পরিক্রমায় স্মার্ট বাংলাদেশের স্বপ্নযাত্রা’স্লোগান সংবলিত এই বাজেট পেশ করেন।

আজ বাজেট পাসের প্রক্রিয়ায় মন্ত্রিগণ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের ব্যয় নির্বাহের যৌক্তিকতা তুলে ধরে মোট ৫৯টি মঞ্জুরি দাবি সংসদে উত্থাপন করেন। এই মঞ্জুরি দাবিগুলো সংসদে কণ্ঠভোটে অনুমোদিত হয়।


মন্তব্য