দুর্ঘটনাবশত খাঁচায় পড়া শিশুর জুতা ফেরত দিলো শিম্পাঞ্জি

শিম্পাঞ্জি
  © সংগৃহীত

মানুষের সাথে খুব কাছাকাছি মিল আছে এমন একটি প্রাণী হচ্ছে শিম্পাঞ্জি। শিম্পাঞ্জির সাথে মানুষের প্রায় ৯৬% এর ও বেশি জেনেটিক মিল আছে। এজন্য শিম্পাঞ্জি বুদ্ধিমান ও বন্ধুভাবাপন্ন হিসেবে আলাদা পরিচিত। এটিই আবার প্রমাণ করেছে চীনের এক পার্কের একটি শিম্পাঞ্জি। শিম্পাঞ্জির খাঁচায় একটি শিশু দুর্ঘটনাবশত নিজের এক পাটি জুতা ফেলে দেয়। শিম্পাঞ্জিটি জুতাটি ফেরত দিয়ে বাহবা কুড়ায় দর্শকদের।

ঘটনাটি চীনের শ্যাংডন প্রদেশের ওয়েইহাই সিটির ওয়াইল্ড অ্যানিমেল নেচার রিজার্ভের। এক ভিডিওতে দেখা যায় ডং ডং নামের শিম্পাঞ্জিটি একটি শিশু খাঁচায় ফেলে দেওয়া এক পাটি জুতা নিয়ে খেলা করছে। তারপরই ১৪ বছর বয়স্ক শিম্পাঞ্জিটি জুতাটা ছুড়ে দেয় দর্শককে লক্ষ্য করে। তারা এটি ফিরিয়ে দেন জুতার মালিক শিশুটিকে।

এসব তথ্য জানা যায় মার্কিন সংবাদমাধ্যম ইউনাইটেড প্রেস ইন্টারন্যাশনালের এক প্রতিবেদনে।

চিড়িয়াখানার একজন প্রাণীরক্ষক বলেছেন, ডং ডং একটি অতি বুদ্ধিমান শিম্পাঞ্জি। অতীতেও দর্শকদের হারানো সম্পত্তি ফিরিয়ে দেওয়ার রেকর্ড আছে তার।

একই চিড়িয়াখানায় একটি হাতি সম্প্রতি একটি শিশুকে তার জুতা ফিরিয়ে দেওয়ার দৃশ্য ক্যামেরায় ধরা পড়ে।


মন্তব্য