হাজিদের জন্য উড়ন্ত ট্যাক্সি ও ড্রোন ব্যবস্থা চালু করবে সৌদি

হাজি
  © ফাইল ছবি

চলতি বছরেই হাজিদের জন্য অত্যানুধিক যাতায়াত ব্যবস্থা চালু করতে যাচ্ছে সৌদি আরব। দেশটি জানিয়েছে, এবার হজের মওসুমেই হাজিদের জন্য পরীক্ষামূলকভাবে উড়ন্ত ট্যাক্সি ও ড্রোন ব্যবস্থা চালু করা হবে। শুক্রবার (১০ মে) মিডল ইস্ট মনিটরের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সৌদি আরবের পরিবহন ও লজিস্টিক মন্ত্রী সালেহ আল জাসের বলেন, এ বছর হজের মওসুমে উড়ন্ত ট্যাক্সি এবং ড্রোন ব্যবহারের পরীক্ষা চালানো হবে। বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যম আল-আরাবিয়াকে তিনি বলেন, উড়ন্ত ট্যাক্সি অত্যন্ত উন্নত পরিবহন ব্যবস্থার প্রতিনিধিত্ব করে। আসন্ন বছরগুলোতে সর্বোত্তম সেবা দেওয়ার জন্য পরিবহন সেক্টরে অনেক বিশেষায়িত সংস্থার মধ্যে প্রতিযোগিতা চলছে।

পরিবহনমন্ত্রী বলেন, সৌদি আরব হজযাত্রীদের ভ্রমণের সুবিধার্থে এ বছরের হজ মৌসুমে আরও দ্রুত এবং নির্বিঘ্ন করতে উন্নত প্রযুক্তি এবং পরিবহন ব্যবস্থা চালুর জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। েএগুলোর সুবিধা নেওয়ার জন্য অমাদের অবশ্যই এগিয়ে থাকতে হবে।

চলতি বছরের শুরুর দিকে উড়ন্ত ট্যাক্সি চালুর পরিকল্পনার কথা জানায় সৌদি আবর। পরিকল্পনা অনুযায়ী সৌদি আরব এয়ারলাইনস জেদ্দার কিং আব্দুল আজিজ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এবং মক্কার হোটেলগুলোর মধ্যে হজযাত্রীদের জন্য এ উড়ন্ত ট্যাক্সি চালুর কথা রয়েছে। এজন্য প্রায় ১০০ উড়ন্ত ট্যাক্সি কেনার পরিকল্পনার কথাও জানানো হয় তখন।

এর আগে সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বৈধ হজযাত্রীদের চিহ্নিত করতে এবারের হজ মৌসুমে প্রত্যেককে আলাদা করে একটি ডিজিটাল ট্যাগ দেওয়া হবে। তাদের উদ্দেশ্য, কোনোভাবেই যেন নিবন্ধন ছাড়া অবৈধভাবে কেউ হজ করতে না পারে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের হজযাত্রীদের প্রথম দলটি সৌদি আরবে পৌঁছাবে দুই সপ্তাহেরও কম সময়ের মধ্যে। ঠিক তার আগেই অবৈধ বিদেশি হজযাত্রীদের রুখতে এই উদ্যোগ নিল বাদশা সালমান প্রশাসন।

সৌদি আরবের হজবিষয়কমন্ত্রী জানান, চলতি সপ্তাহে ইন্দোনেশিয়ায় বৈধ হজযাত্রীদের জন্য একটি করে ডিজিটাল নুসুক কার্ড দেওয়ার প্রকল্প শুরু হয়েছে। এই কার্ডগুলো ইন্দোনেশিয়া থেকে সৌদি আরবে যাওয়া হজযাত্রীদের দেওয়া হবে। ডিজিটাল এই নুসুক কার্ডে সংশ্লিষ্ট হজযাত্রীর প্রয়োজনীয় সব তথ্য মজুত থাকবে এবং হজের জন্য পবিত্র কাবার প্রাঙ্গণে প্রবেশ করতে চাইলে এই ডিজিটাল কার্ড অবশ্যই প্রদর্শন করতে হবে। এ ছাড়া, হজের অন্যান্য আনুষ্ঠানিকতা পালনেও বিভিন্ন জায়গায় এই ডিজিটাল কার্ড দেখাতে হবে।


মন্তব্য