অনলাইনে রোমান্স করার দিন আজ

অনলাইন
  © ফাইল ছবি

বর্তমানে চলছে তথ্য প্রযুক্তির যুগ। আর প্রযুক্তির কারণে প্রতিনিয়তই আমরা নতুন অনেক কিছুর সঙ্গেই পরিচিত হচ্ছি। এর কল্যাণে অনেক কিছুই এখন হাতের মুঠোয়। একটা সময় ছিল যখন পছন্দের মানুষটিকে মনের কথা বলতেও অনেক সময়ের ব্যাপার ছিল। যা এখন একটি মেসেজ বা কলেই জানিয়ে দেওয়া সম্ভব।

এছাড়াও প্রযুক্তির কল্যাণে লম্বা দূরত্বের (লং ডিসট্যান্স) সম্পর্কের জনপ্রিয়তাও বাড়ছে। অনলাইন ডেটিং অ্যাপের মাধ্যমে স্থান, কাল ও ভাষার জড়তা অনেক কমে গেছে বলে অ্যাপ ব্যবহারকারীরা মনে করেন। এজন্য মাঝে মাঝেই খবরে উঠে আসে প্রেমের টানে পাকিস্তানের তরুণী বাংলাদেশে, তো প্রেমের টানে ইন্দোনেশিয়ার তরুণী দেশে। এছাড়া প্রেমের টানে অনেক তরুণকেও বাংলাদেশে আসতে দেখা গেছে। মোটকথা অনলাইন ডেটিং বর্তমানে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। গ্রামীণ এলাকার মানুষের মধ্যেও ডেটিং অ্যাপ ব্যবহারের প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। আর যারা এই অ্যাপ ব্যবহার করেন, তাদের জন্য সুখবর!

আজ ১৪ মে, আজকের দিনটি অনলাইনে রোমান্স করার দিন। ন্যাশনাল টুডে অবলম্বনে এই দিনটি পালন করে অনেকেই।

গত কয়েকদশক থেকেই অনলাইনেও জনপ্রিয়তা পেয়েছে ডেটিং। যেখানে সহজেই মানুষ চাইলে এক স্থান থেকে অন্য দেশে যোগাযোগ স্থাপন করতে পারে বা ডেটিং করতে পারে।

প্রতি বছরের ১৪ মে দিনটি পালন করে বিশ্বের নানা প্রান্তের নানা বয়সী মানুষেরা।

১৯৬৫ সালে ম্যাচ ডটকম সর্বপ্রথম অনলাইনে ডেটিং বা রোমান্স চালু করে। ২০০৭ সাল নাগাদ অনলাইন ডেটিং ছিল দ্বিতীয় জনপ্রিয় অনলাইন পেইড পরিষেবা। এভাবেই সারাবিশ্বে ধীরে ধীরে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে অনলাইন ডেটিং।


মন্তব্য