'রেমাল' নাকি 'রিমাল' সঠিক উচ্চারণ কোনটি?

রিমাল
  © ফাইল ছবি

বঙ্গোপসাগর থেকে বাংলাদেশের উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে ভয়ংকর এক ঘূর্ণিঝড়। রাতজুড়ে তাণ্ডবের পর প্রবল ঘূর্ণিঝড় রিমাল উত্তর দিকে অগ্রসর ও দূর্বল হয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। বর্তমানে যশোরের ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে ঝড়টি। তবে সময় গড়ালেও ঘূর্ণিঝড়ের নাম নিয়ে তৈরি হয়েছে আরেক ঝড় 'রেমাল' নাকি 'রিমাল'?

এই ঘূর্ণিঝড়ের নাম নিয়ে এখন সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে নানান জায়গায় নানান ধরনের তর্ক-বিতর্ক চলছেই । কেউ কেউ ঠাট্টা করে এই ঘূর্ণিঝড়কে ‘রুমাল’ বা 'রুমেলা' বলে ডাকতে শুরু করেছেন।

Remal, আরবি ভাষার শব্দকে বাংলায় অনেকেই বলছেন রেমাল, আবার অনেকেই বলছেন রিমাল। তবে যারা রেমাল অথবা রিমাল বলছেন, তারা কেউই উচ্চারণের দিক দিয়ে ভুল বলছেন না। আরবি ভাষার Remal কে বাংলা উচ্চারণের ক্ষেত্রে রেমাল অথবা রিমাল যেটাই বলুন না কেন দুটিই ঠিক।

এরকম উদাহরণ বাংলায় ব্যবহৃত অনেক শব্দের ক্ষেত্রে লক্ষ্য করা যায়। যেমন- রেদওয়ান (রিদওয়ান)। অর্থাৎ বাংলায় লেখা এবং উচ্চারণের ক্ষেত্রে রেমাল এবং রিমাল উভয়ই সঠিক। এই শব্দটা ইংরেজিতে ব্যবহার করতে গেলেও ধ্বনিতত্ত্বের নিয়ম এবং আঞ্চলিক উচ্চারণ দ্বারা প্রভাবিত হয়।

বঙ্গোপসাগর ও আরব সাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড়ের নামের তালিকা অনুমোদন করে আঞ্চলিক কমিটির একটি প্যানেল। তার নাম ডব্লিউএমও/এসকাপ প্যানেল অন ট্রপিক্যাল সাইক্লোনস। এর মধ্যে আছে ভারত, শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ, মালদ্বীপ, মিয়ানমার, ওমান, পাকিস্তান, থাইল্যান্ড, ইরান, কাতার, সৌদি আরব, ইয়েমেন ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। ২০১৮ সালের আরএমএসসি নতুন করে ঘূর্ণিঝড়ের নামের তালিকা করে। এ সময় ১৩টি দেশ ১৩টি করে নাম দেয়। নামকরণের ক্ষেত্রে কয়েকটি বিষয় মেনে চলা হয়। যেমন রাজনীতি বা রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, ধর্মীয় বিশ্বাস, সংস্কৃতি বা লিঙ্গনিরপেক্ষ হতে হবে নামগুলোকে। বিশ্বের কোনো অঞ্চলের কোনো মানুষের অনুভূতিতে আঘাত করে, এমন নাম দেওয়া যাবে না। নাম রূঢ় হতে পারবে না। এটি সংক্ষিপ্ত ও সহজে উচ্চারণ করা যায়, এমন হতে হবে। সর্বোচ্চ আটটি বর্ণ থাকতে হবে ওই নামে। নাম দেওয়ার পাশাপাশি এখানে উচ্চারণও দিয়ে দিতে হবে। সদস্যদেশগুলোর দেওয়া প্রস্তাবিত নাম সময়ে সময়ে সংশোধন করা যাবে।

ডব্লিউএমও/এসকাপ প্যানেল অন ট্রপিক্যাল সাইক্লোনসের সদস্যরাষ্ট্রগুলোর ইংরেজি নামের আদ্যক্ষর অনুযায়ী নামের তালিকা হয়। যেমন ইংরেজি বর্ণমালা অনুযায়ী এই ১৩ দেশের মধ্যে সবচেয়ে আগে থাকে বাংলাদেশের নাম। আর শেষে থাকে ইয়েমেনের নাম। এবার ‘রেমাল’ শব্দটি ওমান থেকে নেওয়া হয়েছে। এই নামের অর্থ ‘বালু’। এরপরই আসবে পাকিস্তানের নাম।

তবে যারা যারা ঠাট্টা করে রুমাল বা অন্য কিছু বলছেন তারা মোটেই ঠিক বলছেন না। মূলত এমন নামকরণ করা হয়ে থাকে যাতে করে ঘূর্ণিঝড়ের বিষয়ে ওই সকল সমুদ্র তীরবর্তী এলাকায় থাকা মানুষেরা টের পান, নামের ক্ষেত্রে বিভ্রান্তি হয়ে কোনরকম বিপর্যয়ের মুখোমুখি যাতে না হয়।


মন্তব্য