১০ বছর পর শিরোপার হাতছানি বরুশিয়ার

ফুটবল
বরুশিয়া ডর্টমুন্ড  © ফেসবুক থেকে

জার্মান বুন্দেসলিগায় ৩৪ রাউন্ডের মৌসুমে ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে দলগুলোর ৩৩টি করে ম্যাচ। টেবিলের শীর্ষে আছে বরুশিয়া ডর্টমুন্ড, পরেই অবস্থান বায়ার্ন মিউনিখের। মৌসুম প্রায় শেষ হয়ে আসলেও শিরোপা কোন দলের হাতে উঠতে চলেছে তা এখনও নির্ধারিত হয়নি। জমজমাট লিগের শেষ ম্যাচে হবে ফয়সালা। ডর্টমুন্ড নাকি বায়ার্ন, কে হবে আসরের লিগ চ্যাম্পিয়ন জানা যাবে শেষ রাউন্ডের লড়াইয়ের পর।

টেবিলের শীর্ষ দল ডর্টমুন্ড এখন পর্যন্ত ৩৩ ম্যাচ খেলে ৭০ পয়েন্ট পেয়েছে। জয় পেয়েছে ২২টিতে, ড্র চারটি, হেরেছে সাতটিতে। ২০১১-১২ মৌসুমে সবশেষ চ্যাম্পিয়ন হওয়া ডর্টমুন্ড শেষ ম্যাচ খেলবে টেবিলের নয় নম্বর দল মেইনজ০৫-এর বিপক্ষে।

শেষ ম্যাচটি জিততে পারলে ১০ বছর পর সরাসরি লিগ চ্যাম্পিয়ন হবে কোচ এডিন টেরজিচের দল। সিগন্যাল ইদুনা পার্কে ২৭মে শিরোপা জয়ের উৎসবে মেতে উঠতে চায় ডর্টমুন্ড।

পড়ুন>>> টানা তৃতীয়বারের মত প্রিমিয়ার লিগ শিরোপা জিতল ম্যান সিটি

তবে মার্কো রয়েসের দল যদি শেষ ম্যাচে ড্র করে বসে এবং দুইয়ে থাকা বায়ার্ন মিউনিখ যদি জিতে যায়, তাহলে পয়েন্ট সমান নিয়ে গোল ব্যবধানে চ্যাম্পিয়ন হবে বায়ার্ন। সেক্ষেত্রে দীর্ঘ শিরোপাখরা ঘোচার সম্ভাবনা থাকবে না বুন্দেসলিগার অন্যতম সফল ডর্টমুন্ডের। ৩৩ ম্যাচে বায়ার্নের পয়েন্ট এখন ৬৮।

আবার শেষ ম্যাচে ডর্টমুন্ড হেরে গেলে এবং বায়ার্ন যদি জিতে যায় তাহলে চ্যাম্পিয়নের মুকুট থেকে যাবে বাভারিয়ানদের মাথায়ই। কোনো হিসাব-কিতাব ছাড়াই বায়ার্ন হবে লিগ টাইটেলধারী।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে আর্সেনালের মতো দীর্ঘদিন শীর্ষে থেকে শেষদিকে পথ হারানো বায়ার্ন মিউনিখের শিরোপা ধরে রাখার ক্ষেত্রে রয়েছে নানাবিধ হিসাব-নিকাশও। দুইয়ে থাকা বায়ার্ন শেষ ম্যাচ খেলবে ১০ নম্বরে থাকা কোলনের বিপক্ষে। ২৭মে’র ওই ম্যাচ জিততেই হবে বাভারিয়ানদের, সঙ্গে তাকিয়ে থাকতে হবে ডর্টমুন্ডের পরাজয়ের দিকেও।

বায়ার্ন কোচ থমাস টুখেলের শিষ্যরা এপর্যন্ত ২০ জয়, আট ড্র এবং পাঁচ হারে ৬৮ পয়েন্ট তুলে আশা জিইয়ে রেখেছে। তবে ডর্টমুন্ডের চেয়ে গোলব্যবধানে অনেক এগিয়ে বায়ার্ন। শেষ ম্যাচে ডর্টমুন্ডের ড্র বা হার হলে অ্যালিয়াঞ্জ অ্যারেনায় টানা ১১তম শিরোপা ঘরে তুলবে বুন্দেসলিগার সবচেয়ে সফল বায়ার্ন।

বুন্দেসলিগার জমজমাট রোমাঞ্চের খোলাসা তাই শেষ রাউন্ডের ম্যাচের অপেক্ষায়।


মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ