মুস্তাফিজকে হারিয়ে হতাশ চেন্নাইয়ের কোচ

চেন্নাই
  © ফাইল ছবি

বাংলাদেশ জাতীয় দলে ভালো না করলেও চলতি আসরে চেন্নাইয়ের হয়ে দুর্দান্ত ছন্দে ছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। তবে টুর্নামেন্টের মাঝ পথ দেশে ফিরতে হয়েছে এই টাইগার পেসারকে। কিন্তু ফিজের বিদায়ে পর চেন্নাইয়ে বোলিং লাইন দুর্বল হয়ে পড়েছে, এতে হতাশা প্রকাশ করেছেন কোচ স্টিফেন ফ্লেমিং।

নিজেদের দশম ম্যাচে পাঞ্জাব কিংসের কাছে ৭ উইকেটে হেরেছে চেন্নাই। এ ম্যাচে মাত্র দুটি বল করেই চোট নিয়ে মাঠ ছাড়েন চেন্নাই পেসার দীপক চাহার। চলতি মৌসুমে এর আগেও চোটের কারণে দুটি ম্যাচে খেলতে পারেননি তিনি।

চোটের কারণে পেসার মাথিশা পাতিরানাকেও এ ম্যাচে পায়নি চেন্নাই। আর ফ্লুতে আক্রান্ত হওয়ায় দলের সঙ্গে মাঠেই যাননি আরেক পেসার তুষার দেশপান্ডে। কিন্তু সমস্যার এখানেই শেষ নয়।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য ভিসার কাজে দ্রুতই শ্রীলঙ্কায় ফিরবেন পাতিরানা ও স্পিনার মহীশ থিকশানা। শ্রীলঙ্কার এই দুই বোলারকে অবশ্য রবিবার পাঞ্জাবের বিপক্ষে ফিরতি ম্যাচে পাওয়ার আশা করছে চেন্নাই। যদিও সেটা এখনও নিশ্চিত নয়।

আর গতকালের ম্যাচ দিয়েই চেন্নাইয়ের হয়ে বাংলাদেশের পেসার মোস্তাফিজুর রহমানের এবারের আইপিএল অভিযানের সমাপ্তি ঘটেছে।

শেষ ম্যাচে উইকেট না পেলেও ৪ ওভারে ২২ রান দেওয়ার পাশাপাশি একটি মেডেন পেয়েছেন মোস্তাফিজ। দেশে ফিরে তিনি যোগ দেবেন বাংলাদেশ দলে।

পাঞ্জাবের কাছে হারের পর চেন্নাইয়ের প্রধান কোচ ফ্লেমিং দলের বোলিং বিভাগের সমস্যাটা তুলে ধরেন, শ্রীলঙ্কান ছেলেরা ভিসার জন্য (দেশে) ফিরবে। আশা করি তাদের কাজটা দ্রুত শেষ হবে এবং আমরা পরের ম্যাচে তাদের পাব। মোস্তাফিজকে হারানোটা হতাশার। (বোলিং বিভাগে) আসলে অনেক কিছুই ঘটছে।

চাহারের ইনজুরি নিয়ে ফ্লেমিং বলেছেন, দীপক চাহারকে দেখে ভালো মনে হয়নি। প্রাথমিকভাবে দেখে মনে হয়েছে ভালো নেই। ফিজিওদের কাছ থেকে আমি তাই ইতিবাচক খবর পাওয়ার অপেক্ষায় আছি।


মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ