নিউইয়র্কে বিশ্বকাপ ম্যাচে স্টেডিয়ামের নিরাপত্তায় থাকছে 'স্নাইপার'!

বিশ্বকাপ
  © ফাইল ছবি

নবম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরু হয়েছে। এবারের বিশ্বকাপ আয়োজন করছে যৌথভাবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এই প্রথমবার ক্রিকেট বিশ্বকাপে অংশ নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে দেশটিতে কোন স্টেডিয়াম ছিলো না। ফলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য ৩০ মিলিয়ন ডলার ব্যয়ে মাত্র পাঁচ মাসে তৈরি করা হয়েছে নিউইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামে। বিশ্বকাপের পর যা সরিয়ে ফেলা হবে।

তবে স্টেডিয়ামটিকে ঘিরে নিরাপত্তা জোরদার করেছে নিউইয়র্ক পুলিশ। শুধু তা-ই নয়, ম্যাচের সময় মাঠের চারপাশে গোপনস্থানে ওঁৎ পেতে থাকবেন স্নাইপাররা।

মূলত বিশ্বকাপকে ঘিরে জঙ্গি হামলার হুমকি দেওয়া হয়েছে। সে কারণে নিরাপত্তার ব্যাপারে কোনো ছাড় দেওয়া হচ্ছে না। নিউইয়র্কে অনুষ্ঠেয় ম্যাচগুলো যেন কোনো অঘটন ছাড়াই সম্পন্ন হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে বড় অভিযান চালাবে পুলিশ।  

নিরাপত্তা ব্যবস্থায় বিশেষজ্ঞ স্নাইপারদের নিয়ে নিয়োজিত থাকবে সোয়াট টিম। এছাড়া মাঠের ভেতরে সাধারণ পোশাকে থাকবেন পুলিশের বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা। টুর্নামেন্ট নির্বিঘ্নে শেষ করতে নিউইয়র্ক পুলিশ, এফবিআই, হোমল্যান্ড সিকিউরিটি টিম ও অন্যান্য সংস্থার সঙ্গে একযোগে কাজ করছে নাসাউ পুলিশ।

সম্ভাব্য ড্রোন হামলা মোকাবিলায় মাঠে পাশে থাকা পার্কটিতে জনসাধারণের প্রবেশ বন্ধ থাকবে আগামী ৮ দিনের জন্য। খেলা দেখতে আসা দর্শকদের কঠিন নিরাপত্তা বলয় পাড়ি দিয়ে স্টেডিয়ামে ঢুকতে হবে। যেমনটা এয়ারপোর্টে করা হয়ে থাকে।

প্রসঙ্গত, আগামী ৯ জুন নিউইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত-পাকিস্তান। এই ম্যাচকে ঘিরে ইসলামি স্টেট আইএস হামলার হুমকি দিয়েছে বলে জানা গেছে। হামলার হুমকি পাওয়ার পর এই ম্যাচের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। নিউইয়র্ক শহরের গভর্নর কার্যালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, তারা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন এবং তাদের পাওয়া খবর অনুযায়ী এই মুহূর্তে জনজীবনে নিরাপত্তায় বিশ্বাসযোগ্য কোনো হুমকি নেই।

একটি গ্রাফিক্স পোস্টারের সাহায্যে এই হুমকি দেয়া হয়েছে। যে গ্রাফিক্সটি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে, সেখানে দেখা যাচ্ছে, মাথায় হুডি পরা একটি লোকের পিঠে আগ্নেয়াস্ত্র। নিচের অংশে সাদা ও লাল অক্ষরে লেখা, ‘তোমরা ম্যাচের অপেক্ষায় আছো আর আমরা আছি তোমাদের অপেক্ষায়।’ হামলার হুমকি পাওয়ার পর এই ম্যাচের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে।

ম্যানহাটন থেকে ২৫ মাইল পূর্বে অবস্থিত নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়াম। ৩ থেকে ১২ জুন পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এই মাঠে ৮টি ম্যাচ হবে। নিউইয়র্কের গভর্নর ক্যাথি হোচুল জানিয়েছেন, ম্যাচ যেন ঠিকমতো অনুষ্ঠিত হয়, সে জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সঙ্গে নিয়ে মাসের পর মাস কাজ করে যাচ্ছে তার প্রশাসন।

নিউইয়র্কের গভর্নর ক্যাথি হোচুল বলেন, পুলিশকে বলেছি নিরাপত্তা জোরদার করতে। এরমধ্যে রয়েছে আইনের প্রয়োগ, নজরদারি এবং যাচাই-বাছাই করা। জনগণের নিরাপত্তাই আমার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। ক্রিকেট বিশ্বকাপ যেন নিরাপদ এবং উপভোগ্য হয়, তা নিশ্চিতে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

নাসাউ কাউন্টির পুলিশ কমিশনার প্যাট্রিক রাইডার হুমকির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

নিউইয়র্কে চারটি ম্যাচ খেলবে ভারত। ৫ জুন খেলবে কানাডার বিপক্ষে, এরপর ৯ জুন প্রতিপক্ষ পাকিস্তান, ১২ জুন প্রতিপক্ষ যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে আগামী ১ জুন বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচও খেলবে ভারত।


মন্তব্য