বেতনভাতা বন্ধসহ বাংলাদেশ দলের বিরুদ্ধে যত দাবি নেটিজেনদের

বিশ্বকাপে
  © ফাইল ছবি

সমীকরণ ছিল সহজ। ১২.১ ওভারে করতে হবে ১১৬ রান। তাহলেই মিলবে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের টিকিট। তাও না পারলে ২০ ওভারে রানগুলো করলেই পাওয়া যাবে জয়ের স্বাদ। অথচ এমন ম্যাচই কি না হেরেছে বাংলাদেশ! আইসিসি টি-২০ বিশ্বকাপে সুপার এইটের শেষ ম্যাচে আফগানিস্তানের করা ১১৫ রানের জবাবে ১০৫ রানে গুটিয়ে গেছে বাংলাদেশ। ডিএল মেথডে ৮ রানের হারে সুপার এইটে জয় ছাড়াই আসর শেষ করেছে টাইগাররা।

বাংলাদেশের এমন হারের পর ফুঁসে উঠেছেন নেটিজেনরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা পোস্ট ও কমেন্টবক্সে ক্ষোভ ঝাড়ছেন তারা। এরই মধ্যে নানারকম দাবী দাওয়া উঠে এসেছে তাদের মন্তব্যে।

অধিকাংশ সমর্থকই আফগানদের কাছে এই হার মেনে নিতে পারছেন না। তাদের দাবি, বাংলাদেশ দল এয়ারপোর্টে যেদিন ফিরবে তাদেরকে জুতার মালা দিয়ে বরণ করা হোক। কেউ কেউ চেয়েছেন ক্রিকেটারদের বেতন যেন অর্ধেক করা হয়।

এখানেই শেষ নয়। বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের নানা সুবিধা বন্ধেরও দাবি করেন অনেকে। এদিকে নানারকম পোস্টে হতাশা তুলে ধরেছেন সমর্থকরা। যেমন চাকুরিজীবী নুরুল করিম লিখেছেন, ‘‘ওরা দেশের জন্য খেলে...’’ এটাও একটা স্ক্যাম।

এদিকে রিয়াদের ইনিংসেই বাংলাদেশ সেমির দৌড় থেকে ছিটকে যায়। তাকে নিয়ে রেজওয়ান সাদিদ লিখেছেন, আপনার কাছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ক্যারিয়ার হাইলাইট কী হয়ে থাকবে জানি না, তবে আমার জন্য আজকের এই ইনিংসটাই।

তিনি আরো লেখেন, সারা জীবনের মতোই একটা ভ্যালুলেস ইনিংস খেলে গেলেন, জাতীয় জীবনে যেসব ইনিংস কোনো অর্জন বয়ে আনে না। কিন্তু তবুও মাহমুদউল্লাহকে নিয়ে অনেকে গদগদ হবে, কারণ, তাঁর ওপরে যারা খেলে, ওরা আদতে ক্রিকেটারই না।

মোট কথা, আজকের হারের পর নেটিজেনরা সমালোচনার বন্যায় ভাসিয়ে দিচ্ছেন ক্রিকেটারদের। তবে বিসিবি কোনোকিছু আমলে নেয় কিনা সেটাই এখন দেখার।


মন্তব্য