জুয়ার বিজ্ঞাপনে সাকিব; যা বললেন সিআইডি প্রধান

সাকিব
  © ফাইল ছবি

সময়টা খুব একটা ভালো যাচ্ছে না ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানের। বিশ্বকাপ ক্রিকেটে বাজে পারফর্মেন্সের কারণে ব্যাপক সমালোচিত হচ্ছেন তিনি। এদিকে সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ঢুকলেই বাংলাদেশ ক্রিকেটের পোস্টারবয় সাকিব আল হাসানের একটি অনলাইন জুয়ার বিজ্ঞাপন চোখ পড়ে। যা নিয়ে অনেক সমালোচনার শিকার হতে হচ্ছে এই ক্রিকেটারকে।

এই বিজ্ঞাপনের বিষয়টি পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) প্রধান (অতিরিক্ত আইজিপি) মোহাম্মদ আলী মিয়ার নজরে আনলে তিনি বলেছেন, কোনো ব্যক্তির দিকে না গিয়ে আইনের মধ্যে থাকতে।

রোববার (৩০ জুন) দুপুরে সিআইডি কার্যালয়ে ‘অনলাইন জুয়া ও মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে অবৈধ অর্থ স্থানান্তর নিয়ন্ত্রণে চ্যালেঞ্জ’ বিষয়ক গবেষণা প্রতিবেদন উপস্থাপন অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

সিআইডি প্রধান জানান, দেশে অনলাইন জুয়া বা গ্যাম্বলিং নিয়ন্ত্রণে অন্যতম চ্যালেঞ্জ তথ্যের ঘাটতি এবং কোনো গবেষণা ও সুনির্দিষ্ট আইন না থাকা। ধারণা করা হচ্ছে, দেশে সাড়ে ৬ হাজারের বেশি গ্যাম্বলিং টিম রয়েছে।’

গ্যাম্বলিং বা অনলাইন জুয়া নিয়ন্ত্রণে সবার আগে দেশে আইন প্রণয়ন জরুরি। এনিয়ে তিনি বলেন, না হলে অর্থ পাচারসহ নানা ধরনের অনলাইনভিত্তিক অপরাধ বাড়বে। আইনমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্টদের এ বিষয়ে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, মোবাইল ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান ও মোবাইল অপারেটরগুলোকে আইনের আওতায় আনা জরুরি। ই-মানিতে টাকার সোর্স কখনও দেখা হয় না। এ বিষয়ে বেশ কিছু মামলা হয়েছে।

অনলাইন জুয়া এবং অর্থ পাচারসহ বিভিন্ন অপরাধ দমনে অবদান রাখতে হবে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) ও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোকে। না হলে একক ইউনিটের পক্ষে এগুলো বন্ধ করা কঠিন বলে জানিয়েছেন সিআইডি প্রধান।


মন্তব্য