ফ্রান্সকে হারিয়ে ১২ বছর পর ইউরোর ফাইনালে স্পেন

ফ্রান্স
  © ফাইল ছবি

ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে সেমিফাইনালে ফ্রান্সকে ২-১ গোলে হারিয়ে ফাইনাল মঞ্চে উঠে এলো স্পেন। ১৬ বছরের ইয়ামাল ও দানি অলমোর গোলে জয় পেয়েছে লা রোযারা। যদিও প্রথমার্ধে আগে গোল করে ফরাসিরা।

শুরুতে পিছিয়ে থেকেও শেষ পর্যন্ত জয় পেয়ে ১২ বছর পর ইউরোর ফাইনালে জায়গা নিশ্চিত করল দে লা ফুয়েন্তের দল। এই জয়ের মাধ্যমে প্রথম দল হিসেবে ইউরোতে টানা ছয় ম্যাচ জেতার রেকর্ড গড়ল স্পেন। রেকর্ড হয়েছে লামিনে ইয়ামালেরও। ১৬ বছরের এই কিশোর এখন ইউরোর ইতিহাসের সবচেয়ে কম বয়েসী গোলদাতা।

ফ্রান্সের বিপক্ষে সেমিফাইনালের ম্যাচ শুরুর আগেই অবশ্য স্পেনকে ইউরোর শিরোপার সবচেয়ে বড় দাবিদার বলে মানছিলেন বেশিরভাগ ফুটবল বিশেষজ্ঞ। স্পেনের ১৬ বছর বয়সী লামিন ইয়ামাল অসাধারণ স্ট্রাইক দিয়ে হয়ে গেলেন ইতিহাসে সর্বকনিষ্ঠ গোলদাতা। আর তার ম্যাচে গোল পেয়েছেন দানি অলমোও।

মিউনিখের আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় মঙ্গলবার (৯০ জুলাই) রাতে প্রথম সেমি-ফাইনালে ২-১ গোলে জিতেছে লুইস দে লা ফুয়েন্তের দল। ইউরো ফুটবল আসরে ছয় ম্যাচ খেলে সবগুলোতেই জয় পায় স্পেন।

রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে তিনটি গোলই হয়েছে ২৫ মিনিটের মধ্যে। রান্দাল কোলো মুয়ানির গোলে পিছিয়ে পড়া স্পেন সমতায় ফেরে ইয়ামালের গোলে। তাদের জয়সূচক গোলটি করেন দানি ওলমো।

আগামী রোববার বার্লিনের ফাইনালে দ্বিতীয় সেমি-ফাইনালে ইংল্যান্ড ও নেদারল্যান্ডসের মধ্যে বিজয়ীর মুখোমুখি হবে তিনবারের চ্যাম্পিয়ন স্পেন।


মন্তব্য