নতুন চেয়ারম্যান নিয়োগ দিয়েই পরীক্ষা নেওয়া হবে জবি শিক্ষার্থীর: উপাচার্য 

জবি
  © টিবিএম ফটো

যৌন হয়রানি ও মানসিক অত্যাচারের অভিযোগ করা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ফিল্ম এন্ড টেলিভিশন বিভাগের শিক্ষার্থীর বিগত পরীক্ষা গুলো নতুন চেয়ারম্যান নিয়োগের পর‌ই নেওয়া হবে। তবে সম্পূরক পরীক্ষা দেওয়ার জন্য বিভাগে আবেদন করতে হবে বলে জানান বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের জরুরি সিন্ডিকেট সভা শেষে বৃহস্পতিবার (২১মার্চ) এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম। 

এর আগে ফিল্ম এন্ড টেলিভিশন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক জুনায়েদ আহমদ হালিম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তি স্নাতক ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের যে সকল শিক্ষার্থী বিভিন্ন সেমিস্টারে যে কয়টি বিষয়ে অকৃতকার্য হয়েছে, তাদের ২৩ থেকে ২৭ মার্চের মধ্যে সেসব বিষয়ে সম্পূরক পরীক্ষা দেওয়ার জন্য বিভাগে আবেদন করতে হবে বলে জানান।

ফলে পরীক্ষায় বসতে পারবেন যৌন নিপীড়ন ও পরীক্ষায় ফেল করিয়ে দেওয়ার অভিযোগ তোলা শিক্ষার্থী কাজী ফারজানা মীম।

এনিয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম বলেন, ‘ওই বিভাগের চেয়ারম্যান জুনায়েদ হালিম তাকে বিভিন্নভাবে অসহযোগিতা করেছে, তারও সত্যতা পাওয়া গেছে। তাকেও চেয়ারম্যানের পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হবে এবং নতুন চেয়ারম্যান নিয়োগ দিয়ে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর বিগত পরীক্ষাগুলো নেওয়া হবে।’

দেড় বছর আগে করা যৌন নিপীড়নের অভিযোগে ফিল্ম এন্ড টেলিভিশন বিভাগের প্রভাষক আবু শাহেদ ইমনকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। একইসঙ্গে শিক্ষার্থীকে অসহযোগিতা করায় বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. জুনায়েদ আহমদ হালিমকে চেয়ারম্যান পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।


মন্তব্য