ঢাবির ডিবেটিং সোসাইটির কমিটিতে স্থান পেলো মৃত সোহাদের নাম

ঢাবি
  © টিবিএম ফটো

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটির পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে স্থান পেয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সুইমিংপুলে মারা যাওয়া আন্ডারগ্রাজুয়েট প্রোগ্রামের দর্শন বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী মো. সোহাদ হকের নাম।

মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) ডিবেটিং সোসাইটির সভাপতি অর্পিতা গোলদার এবং সাধারণ সম্পাদক আদনান মুস্তারি স্বাক্ষরিত ৪৯ সদস্য পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে তাকে ইংরেজি বিতর্ক বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য করা হয়েছে।

সোহাদ হক তুখোড় মেধাবী, সাংগঠনিক এবং ভালো বিতার্কিক ছিলেন। তার প্রতি সম্মান জানিয়ে স্মৃতি হিসেবে তার নাম কমিটিতে রাখা হয়েছে বলে জানান সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক আদনান মুস্তারি।

তিনি বলেন, সোহাদ খুবই ভালো একজন বিতার্কিক ছিলেন। সবসময় আমাদের সঙ্গে কাজ করেছেন, সক্রিয় ছিলেন। তার মৃত্যু না হলেও সে নিশ্চিতভাবে কমিটিতে থাকতো। তাই তার অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যু হলেও স্মৃতি হিসেবে আমরা তাকে কমিটিতে রেখেছি। যাতে আমরা তাকে স্মরণ করতে পারি। আমরা বলতে পারি সোহার ডিবেটিং সোসাইটির কমিটির সদস্য ছিল। সোহাদকে আমরা ভীষণ মিস করব। সে যথেষ্ট আন্তরিক এবং ভালো ছাত্র ছিল।

গত ২২ এপ্রিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সুইমিংপুলে গোসল করতে নেমে সোহাদ হকের মৃত্যু হয়। ঢাবির কেন্দ্রীয় খেলার মাঠসংলগ্ন বিশ্ববিদ্যালয় সুইমিং পুলে ডুবে গেলে অচেতন অবস্থায় সহপাঠীরা উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে জরুরি বিভাগে নিয়ে এলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। সোহাদের বাড়ি বগুড়া জেলায়। থাকতেন বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলে।


মন্তব্য