বোরকা পরে গার্লস স্কুলে ঢুকে পড়ল যুবক; ধস্তাধস্তির ভিডিও ভাইরাল

বোরকা
  © সংগৃহীত

নাটোরে বোরকা পরে বালিকা বিদ্যালয়ের অনুষ্ঠানে গিয়ে পুলিশের হাতে আটক হলেন বালক বিদ্যালয়ের এক ছাত্র। আটকের সময় ধারণ করা একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল।

আজ বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ৩টায় শহরের আলাইপুরে অবস্থিত নাটোর সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

আটক ওই তরুণের নাম সাদমান সাকিব (১৫)। সে নাটোর শহরের আলাইপুরের শুখেল হকের ছেলে এবং নাটোর সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির (প্রভাতি শাখা) শিক্ষার্থী।

ভিডিওতে দেখা যায়, সরকারি বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের ভেতরে বোরকা পরিহিত একজনকে সন্দেহজনক মনে হলে বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা তাকে ঘিরে ধরেন। পরে বিষয়টি পুলিশকে জানালে এক পুলিশ সদস্য ওই ব্যক্তির কাছে গেলে সে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় দুই পুলিশ সদস্যের সঙ্গে তার ধস্তাধস্তি হয়।

নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, আটক সাদমান সাকিব নাটোর সরকারি বালক বিদ্যালয়ের প্রভাতি শাখার নবম শ্রেণির ছাত্র। বালক বিদ্যালয়ে বুধবার মিলাদ মাহফিল শেষে বোরকা পরে বালিকা বিদ্যালয়ে আসে। এই ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

নাটোর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক আব্দুল মতিন বলেন, আজ বিদ্যালয়ে বার্ষিক সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠান ছিল। দুপুর আড়াইটার দিকে এক তরুণ বোরকা পরে বিদ্যালয়ের ভেতরে ঢুকে পরে। তার চলাফেরায় সন্দেহ হলে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়।

তিনি আরও বলেন, বিদ্যালয়ে বহিরাগত কোনো পুরুষের ঢোকার কথা নয়। গেটে পুলিশ ছাড়াও দুই শিক্ষক ছিলেন। ওই তরুণের নিশ্চয়ই খারাপ কোনো উদ্দেশ্য থাকতে পারে। 

নাটোরের পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম বলেন, ঘটনাটি আমি দুপুরে জেনেছি, সদর থানার ওসি বিষয়টি দেখছেন।


মন্তব্য