জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধে নারীসহ ৬ জনকে মারধর 

পটুয়াখালী
  © সংগৃহীত

জমি-জমা সংক্রান্ত পূর্ব বিরোধের জেরে পটুয়াখালীর গলাচিপায় ৬ জনকে মারধর করে গুরুতর জখম করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। আহতরা হলেন- মিলন হাওলাদার (৪২), লিটন ফকির (৩০), লিপি বেগম (৩৫), পিয়ারা বেগম (৪৮), সোনিয়া বেগম (২২) ও আরমান ফকির (১৮)। আহতরা গুরুতর জখম নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত ৯ই মে সকালে উপজেলার বকুলবাড়িয়া ইউনিয়নের গুয়াবাড়িয়া ১নং ওয়ার্ড বিরোধীয় জমিতে। এ ঘটনায় গলাচিপা থানায় গোলেনুর বেগম (৪৫) বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে। 

মামলা সূত্রে জানা যায়, পূর্ব থেকে জমিজমা নিয়ে একই এলাকার মো.কালাম হাওলাদার (৬০) এর সঙ্গে বাদী ও তার ভাইয়ের বিরোধ চলমান। ঘটনার দিন পূর্ব শত্রুতার জেরে মিলন হাওলাদারের স্ত্রী লিপি বেগমকে রাস্তায় একা পেয়ে অতর্কিত মারধর শুরু করে কালাম হাওলাদারের নেতৃত্বে তার ছেলেরা এবং ভাইয়ের ছেলেরা। এসময় লিপিকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে বিবাদীরা এলোপাতাড়ি মারধর করে ৬ জনকে গুরুতর জখম করে।

পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে গলাচিপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসে। মামলায় কালাম হাওলাদারকে এক নম্বর আসামি ও নজরুল হাং, আবুল হোসেন, সুবজ হাং, নাসির হাং, মামুন হাং এর নাম উল্লেখ করে দুইজন নারীসহ মোট ৮ জনকে আসামী করা হয়েছে।  

অভিযুক্ত কালাম হাওলাদার এর সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, মারামারিতে আমাদের অনেকই আহত হয়েছে। তাদের দশমিনা হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়েছে। 

গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ফেরদৌস আলম খান জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে, অভিযুক্তদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান চলমান রয়েছে।


মন্তব্য