‌আজমিরীগঞ্জ জলসুখার জমিদার বাড়ি এখন মাদকসেবী ও জুয়ারিদের আখড়া বাড়ি

হবিগঞ্জ
জলসুখার জমিদার বাড়ি  © টিবিএম

হবিগঞ্জ জেলার আজমিরীগঞ্জ উপজেলার কুশিয়ারা নদীর উপশাখা কুশিয়ারার কুদালিয়ার নদীর তীরে অবস্থিত। হাওর নদী নালা বেষ্টিত এই গ্রামের প্রাকৃতিক রুপ অপূর্ব সৌন্দর্যে ঘেরা। পূর্ব থেকেই নদী বেষ্টিত এই ছোট গ্রাম ঐতিহ্যবাহী। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ১৩ জন জমিদারের গ্রাম জলসুখা। এই গ্রামের জমিদার বাড়ি ও জমিদারদের নিয়ে বাংলাদেশের সুনাম ধন্য লেখক হুমায়ুন আহমেদ গেটোপুত্র কমলা টেলিফিল্মের মাধ্যমে কাহিনি ও চিত্র ধারন করেছে। বর্তমানে জলসুখার আড়াইশ বছরের পুরনো ১৩ টি জমিদার বাড়ি বর্তমানে অযত্ন-অবহেলায় পড়ে আছে। জমিদারদের বংশধরেরা বেশ কয়েকটি বাড়ি বিক্রি করার পর নতুন ভাবে সংস্কার করে ব্যবহার করছে তারা ।

এ ছাড়া বাকি বাড়িগুলোর অবস্থা একেবারেই জরাজীর্ণ হওয়ায় এগুলো পরিণত হয়েছে মাদকসেবী ও জুয়াড়িদের অভয় আরন্য তে পরিনত হয়ে পরছে। এই ঐতিহ্যবাহী জলসুখার ১৩ জমিদারের আড়াইশ বছরের পুরনো একটি জমিদার বাড়ি, বৈঠকখানা ও ঘেটু নাট মন্দির অযত্ন-অবহেলায়, পূর্ণ সংস্কার হলে হতে পারে পর্যটন স্পষ্ট হতে পারে। অযত্নে অবহেলায় পরে থাকার কারণে এখন মাদক সেবী ও জোয়ারিদের অভয় আরণ্য।

সন্ধ্যার পর থেকে রাত যত গভীর হয় ততই সেখানে মাদকসেবী ও জোয়ারিদের আড্ডা জমজমাট হয়। আর দিনের বেলাবকাটে ছেলেদের আড্ডা। এ ব্যাপারে আজমিরীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ডালিম আহমেদ সঙ্গে আলোচনা করলে তিনি জানান মাদক বিরোধী অভিযান চলমান রয়েছে, দ্রুত এটি খতিয়ে দেখবো।


মন্তব্য