ইউক্রেন প্রতি মাসে ১০ হাজার ড্রোন হারাচ্ছে: ব্রিটিশ প্রতিষ্ঠানের তথ্য

ড্রোন
  © নিউ ইয়র্ক পোস্ট

ব্রিটেনের একটি গবেষণা সংস্থা জানিয়েছে, রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধে ইউক্রেন প্রতি মাসে ১০ হাজার ড্রোন হারাচ্ছে। এ সমস্ত ড্রোন মোকাবেলার ক্ষেত্রে রাশিয়া তার ইলেকট্রনিক ওয়ারফেয়ারকে অত্যন্ত ইতিবাচকভাবে ব্যবহার করতে সক্ষম হচ্ছে।

ব্রিটেনভিত্তিক রয়াল ইউনাইটেড সার্ভিসেস ইনস্টিটিউট তাদের এক নতুন প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে। খবর পার্স টুডের।

এতে বলা হয়েছে, যুদ্ধক্ষেত্রে রাশিয়া প্রযুক্তিভিত্তিক প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ব্যবহার করছে আর তাতেই ইউক্রেনের হাজার হাজার ড্রোন ধ্বংস হচ্ছে।
এর আগে পশ্চিমা গণমাধ্যমগুলো বারবার দোষারোপ করেছে যে, রাশিয়া ইরানের কাছ থেকে বিপুল সংখ্যক ড্রোন পেয়েছে এবং সেগুলো ইউক্রেনের ওপর ব্যবহার করছে যাতে ইউক্রেন ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। কিন্তু ব্রিটেনের এই গবেষণা সংস্থার তথ্য অনুসারে বাস্তব চিত্র ভিন্ন বলেই মনে হচ্ছে। এই রিপোর্ট অনুসারে দেখা যাচ্ছে ইউক্রেনই বরং রাশিয়ার বিরুদ্ধে বেশি ড্রোন ব্যবহার করছে। রাশিয়াকে ড্রোন সরবরাহ করার প্রচারণা ইরান এবং রাশিয়া দুদেশই দৃঢ়তার সাথে প্রত্যাখ্যান করেছে।

ব্রিটিশ গবেষণা প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে, ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী মার্কিন নির্মিত মটোরোলা ২৫৬-বিট এনক্রিপ্টেড টেকনিক্যাল কমিউনিকেশন সিস্টেম ব্যবহার করছে এবং রাশিয়া তার ইলেকট্রনিক ওয়ারফেয়ার ব্যবহার করে সময় মতোই শত্রু ড্রোন মোকাবেলা করতে সক্ষম হচ্ছে।

ব্রিটিশ গবেষণা প্রতিষ্ঠানের রিপোর্টে আরো বলা হয়েছে, বিপুল সংখ্যক ড্রোন হারালেও ইউক্রেন তার প্রয়োজনীয় পরিমাণ ড্রোন আবার বানাতে সক্ষম। তবে দেশের ভেঙে পড়া অর্থনীতির এই করুণ দশার ভেতরে ড্রোন নির্মাণের তহবিল ইউক্রেন কোথা থেকে পাচ্ছে তা ওই রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়নি।


মন্তব্য