নিউইয়র্কে পুলিশের গুলিতে বাংলাদেশি তরুণ নিহত

যুক্তরাষ্ট্র
  © ফাইল ছবি

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে ওজোন পার্কে পুলিশের গুলিতে ১৯ বছর বয়সী এক তরুণের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার (২৭ মার্চ) দুপুর দেড়টার দিকে ঘটেছে এ ঘটনা। জানা গেছে ওই তরুণের নাম উইন রোজারিও এবং সে বাংলাদেশের।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিবিএস নিউজের প্রতিবেদন অনুসারে পুলিশ জানিয়েছে, বুধবার দুপুরের দিকে ৯১১ নম্বর থেকে ফোন আসে তাদের কাছে। ওই তরুণ জানান তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন।

এরপর ওজোন পার্কের ১০১তম অ্যাভিনিউয়ের ১০৩তম স্ট্রিটের বাড়িটিতে দুপুর দেড়টার দিকে যায় পুলিশ। তারা বাড়িটির দ্বিতীয় তলায় ভেতরে তাকে দেখতে দেখা যায়। পরে তাকে হেফাজতে নেয়ার চেষ্টা করে। এ সময় ওই তরুণ হাতে থাকা কাঁচি নিয়ে পুলিশ সদস্যদের দিকে তেড়ে আসলে সরাসরি গুলি করে পুলিশ।

এ ঘটনায় নিউইয়র্ক পুলিশ ডিপার্টমেন্টের চিফ অব পেট্রোল জন চেল জানিয়েছেন, ওই তরুণ হাতে থাকা কাঁচি নিয়ে তেড়ে আসছিল পুলিশ সদস্যদের দিকে। এ কারণে তাকে গুলি করা হয়ে। পরে জ্যামাইকা হাসপাতালে নেয়া হলে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

তবে ওই তরুণকে কয়টি গুলি করেছে পুলিশ সেটি স্পষ্ট নয়। তবে জন চেল জানিয়েছেন―পুরো ঘটনাটি শরীরে থাকা ক্যামেরায় রয়েছে। বিষয়টি পর্যালোচনা করা হবে।

এদিকে নিহত তরুণের বাবা ফ্রান্সিস রোজারিও বলেছেন, আমার ছেলে নিজেই যেহেতু বলেছে সে একজন মানসিক ভারসাম্যহীন। তাহলে কেন গুলি করে মারতে হলো তাকে। তিনি পুলিশের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগও জানান।

পুলিশের দাবি, নিহত তরুণ একজন মাদকাসক্ত এবং মানসিক বিকারগ্রস্ত ছিলেন। আর এ ঘটনায় বাংলাদেশি কমিউনিটিতে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।


মন্তব্য