শুধু গাজা, সুদান আর ইউক্রেন নয়; যুদ্ধ হচ্ছে তোমার পকেটেও

নোবেলজয়ী
নোবেলজয়ী মারিয়া  © সংগৃহীত

ফিলিস্তিনের গাজা, সুদান ও ইউক্রেনে চলছে ভয়াবহ যুদ্ধ। এই যুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের প্রতিকূলতার শিকার হচ্ছে তারা। এর প্রভাব পড়েছে বিশ্ব অর্থনীতিতেও। এবার এই যুদ্ধকে উদাহরণ হিসেবে টেনে ‘মানুষের পকেটেও’ যুদ্ধ চলছে বলে মন্তব্য করলেন শান্তিতে নোবেলজয়ী মারিয়া রেসা। 

তিনি একজন সাংবাদিক, ফিলিপাইনের অনলাইন সংবাদমাধ্যম র‍্যাপলারের সহপ্রতিষ্ঠাতাও। গত ২৩ মে যুক্তরাষ্ট্রের হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে বক্তৃতা দেন এই নোবেল বিজয়ী। বর্তমান বিশ্বের প্রেক্ষাপটে সেখানে নিজের অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষার্থীদের কিছু পরামর্শ দেন।  এ সময় তিনি বলেন, যুদ্ধ শুধু গাজা, সুদান আর ইউক্রেনে হচ্ছে। যুদ্ধ হচ্ছে তোমার পকেটেও।

তিনি শিক্ষার্থীদের পরামর্শ দিয়ে বলেন, নত হও, বিশ্বাস গড়। মানবতার ওপর আমাদের বিশ্বাস আবার ফিরিয়ে আনতে হবে। আর সেটা শুরু হতে পারে সহানুভূতি থেকে।

মারিয়া রেসা বলেন, দক্ষিণ আফ্রিকার একটা শব্দ আমার খুব প্রিয়। উবুন্টু। অর্থাৎ আমরা আছি বলেই আমি আছি। এর অর্থ অন্যের ওপর বিশ্বাস রাখার চেয়েও বেশি কিছু। অন্যের জুতায় পা গলানোর চেয়েও বেশি। কিন্তু সত্যিকার উবুন্টু পেতে হলে আমাদের ঢালগুলো নামাতে হবে। এ প্রসঙ্গেই আমার পরামর্শ: নত হও।

তিনি বলেন, অনেক অর্জনের পর আজকের জায়গায় পৌঁছেছ। ভাবতে পারো নত হওয়া মানে দুর্বলতা প্রকাশ করা। কিন্তু সব সম্পর্কে, সব আলোচনাতেই সামনে এগোতে হলে, কিছু পেতে হলে কাউকে না কাউকে তার ঢাল নামাতেই হয়। ইগো (অহং), রক্ষণাত্মক মনোভাবকে সরিয়ে রাখতে হয়। তখন অন্যরাও অনুসরণ করে। সেই অবনত মানুষটা নাহয় তুমিই হলে। কারণ, যখন নত হবে, তখনই শক্ত বন্ধন গড়তে পারবে। আস্থা অর্জন করতে পারবে।

২০২১ সালে শান্তিতে এই নোবেলজয়ী বলেন, সময়টা গুরুত্বপূর্ণ। তুমি কী করছ, সেটাও গুরুত্বপূর্ণ। ভেব না যুদ্ধ শুধু গাজা, সুদান আর ইউক্রেনে হচ্ছে। যুদ্ধ হচ্ছে তোমার পকেটেও। আমরা সবাই সত্যের জন্য, বিশুদ্ধতার জন্য লড়ছি। মনে রেখ, ভবিষ্যতের শাসক তোমাকেও ‘জুম ইন’ করতে পারেন, তুমিও হতে পার লক্ষ্যবস্তু।

তিনি বলেন, যত বড় সুপারস্টারই হও না কেন, যত দিন তুমি একা, তোমার অর্জন হবে অল্পই। কী আমাদের এক করতে পারে, সেটার খোঁজেই আজ একত্র হওয়া দরকার। জ্বলন্ত এই পৃথিবীতে তোমাকে আজ বড় প্রয়োজন। 


মন্তব্য