চাকরি হারাচ্ছেন মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের ১০০ কর্মী

সিএনএন
  © ফাইল ছবি

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় সংবাদ প্রতিষ্ঠানের মধ্য অন্যতম সিএনএন। চাকরি হারাতে যাচ্ছেন মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন- এর প্রায় ১০০ কর্মী। প্রতিষ্ঠানটির এক অভ্যন্তরীণ নথি থেকে এমন তথ্য জানিয়েছেন বার্তা সংস্থা রয়টার্স। 

প্রতিবেদনে জানানো হয়, সিএনএন-এর পরিকল্পনা অনুযায়ী টেলিভিশনের সাংবাদিকদের ডিজিটাল নিউজ টিমের সঙ্গে একত্রিত করা হবে। আরও বেশি ভিডিও কনটেন্ট তৈরিতে বিনিয়োগ করবে প্রতিষ্ঠানটি। কর্মীদের এমনই বার্তা দিয়েছেন সিএনএন-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মার্ক থম্পসন। তিনি বলেন, ‘আগামীতে বিলিয়ন ডলারের ডিজিটাল ব্যবসা গড়ে তোলার প্রস্তুতি নিচ্ছি আমরা।’ 

মার্ক থম্পসন নিউ ইয়র্ক টাইমস এবং বিবিসিতে এক্সিকিউটিভের দাযিত্ব পালন করেছেন। তিনি গত বছরের অক্টোবরে সিএনএন-এর সিইও হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। এরপর থেকে নেটওয়ার্কের কার্যক্রমকে স্ট্রিমলাইন করার চেষ্টা করছেন এবং টিভি দর্শকদের হ্রাস মোকাবিলায় বেশি ভিডিও কনটেন্ট তৈরির চেষ্টা করছেন।

এর আগে, গত শুক্রবারই যুক্তরাষ্ট্রে আরেক সংবাদমাধ্যম ‘ভক্স মিডিয়া’ ঘোষণা করেছে, তারা সামগ্রিক ভাবে ৭ শতাংশ কর্মীকে ছাঁটাই করতে চলেছে। এ বিষয়ে ভক্স মিডিয়া’র সিইও জিম ব্যাঙ্কফ বলেন, টালমাটাল অর্থনৈতিক পরিস্থিতির শিকার হয়ে কর্মীসংখ্যা কমানোর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

ভক্স মিডিয়ার মোট কর্মীসংখ্যা ১ হাজার ৯০০। তার মধ্যে এই দফায় কমপক্ষে ১৩০ জনের চাকরি যেতে চলেছে। এ ছাড়াও এনবিসি, এমএসএনবিসি, বাজ়ফেডে কাজ হারাচ্ছেন বহু মানুষ।

বিগত বেশ কয়েক বছর ধরেই আমেরিকায় সংবাদমাধ্যমে চাকরির পরিমাণ ক্রমশ কমছে। ‘পিইডব্লিউ রিসার্চ সেন্টারে’র ২০২১-এর সমীক্ষায় দেখা গিয়েছিল ২০০৮ থেকে ২০২০-এর মধ্যে আমেরিকার সংবাদমাধ্যমে মোট কর্মীর সংখ্যা ১ লাখ ১৪ হাজার থেকে কমে হয়েছে ৮৫ হাজার।

এছাড়া সম্প্রতি আমেরিকার প্রযুক্তিক্ষেত্রেও ব্যাপক ছাঁটাই চলছে। ‘গুগল’, ‘মাইক্রোসফটে’র মতো বহুজাতিকে কয়েক হাজার কর্মী চাকরি হারিয়েছেন। এই প্রক্রিয়া এখনও চলছে।


মন্তব্য