সড়ক নিরাপদ রাখতে ৫ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প

জাতীয়
৫ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প  © ফাইল ফটো

সড়ক নিরাপত্তার জন্য সারা দেশের প্রায় ৫ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার। প্রস্তাবিত প্রকল্পে বিশ্ব ব্যাংক অর্থায়ন করবে ৩ হাজার ৭৫৯ কোটি ৮২ লাখ টাকা এবং বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নের পরিমাণ ১ হাজার ২২৮ কোটি ৩২ লাখ টাকা। চলতি বছরের মে থেকে ২০২৮ সালের জুন পর্যন্ত সময়ের মধ্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে।

 অর্থমন্ত্রণালয় ও পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এদিকে, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ সূত্রে জানা যায়, সড়ক দুর্ঘটনা কমানো ও দুর্ঘটনাজনিত ক্ষতির মাত্রা কমানো এবং সড়ক নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট সরকারি সংস্থাগুলোর সক্ষমতা বাড়ানো এ প্রকল্পের প্রধান উদ্দেশ্য।

জানা গেছে, প্রকল্পের আওতায় প্রধান কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে- ১১৬ একর ভূমি অধিগ্রহণ; ১৪০ কিলোমিটার এন-৪ এবং এন-৬ সড়ক করিডোরে পাইলট ভিত্তিতে সড়ক নিরাপত্তা কার্যক্রম; অগ্রাধিকার ভিত্তিক কার্যক্রম; টাঙ্গাইল ও বগুড়া জেলায় সড়ক নিরাপত্তা কার্যক্রম; পেশাদার গাড়ি চালকদের প্রশিক্ষণ; বাস্তবায়নকারী সংস্থার সক্ষমতা বৃদ্ধিকরণ; পরামর্শক (প্রকল্প সহায়তা, সওজ, বিআরটিএ, স্বাস্থ্য, পুলিশ); প্রচার ও বিজ্ঞাপন ব্যয়; বেসিক লাইফ সেটিং ম্যানেজমেন্ট বা পরিচালনা, বাইক অ্যাম্বুলেন্স ম্যানেজমেন্ট বা পরিচালনা, কল সেন্টার ও অন্যান্য সার্ভিস; আইটিএমআইডিএস বা আইটিএস হার্ডওয়্যার এবং কন্ট্রোল হার্ডওয়্যার বা সফ্টওয়্যার এবং আইটিএমআইডিএস পূর্ত কাজ, কন্ট্রোল রুম সংস্কার; ওষুধ এবং সরঞ্জামসহ বিএলএস অ্যাম্বুলেন্স সরবরাহ; সমন্বিত ডাটাবেজ সফ্টওয়্যার, হার্ডওয়্যার, রক্ষণাবেক্ষণ এবং হাইওয়ে পুলিশ; পুনর্বাসন।

এ দিকে, অষ্টম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনায় পরিবহন সেক্টরের ভিশন হিসেবে ২০৪১ সালের মধ্যে সড়ক নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট সব সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারিত আছে। ২০২৫ সালের মধ্যে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর হার প্রতি লাখে ১৩.০ জনে নামিয়ে আনার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এছাড়া, এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা- ১১.২ এ ২০৩০ সালের মধ্যে নিরাপদ, সাশ্রয়ী, সবার জন্য প্রবেশগম্য এবং টেকসই পরিবহন ব্যবস্থা বিনির্মাণের বিষয়ে উল্লেখ রয়েছে। ফলে প্রকল্পটি অষ্টম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা এবং এসডিজির সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ। দেশের সব জেলার সব উপজেলায় প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে। প্রকল্পের আওতায় ৫ হাজার ১৪০ কিলোমিটার সড়কে সড়ক নিরাপত্তা ব্যবস্থার উন্নয়ন করা হবে। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে সড়ক দুর্ঘটনা হ্রাস পাবে এবং দুর্ঘটনাজনিত ক্ষতির মাত্রা কমবে। এছাড়া সড়ক নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট সরকারি সংস্থাগুলোর সক্ষমতা বাড়বে।

বেসরকারি সংগঠন ‘যাত্রী কল্যাণ সমিতি’র দেওয়া তথ‌্য মতে, ২০২২ সালে সারা দেশে ৬ হাজার ৭৪৯টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৯ হাজার ৯৫১ জন নিহত হয়েছে এবং আহত হয়েছে ১২ হাজার ৩৫৬ জন। চলতি বছর জানুয়ারি মাসে ৫৮৫ জন, ফেব্রুয়ারি মাসে ৪৬৭ জন ও মার্চ মাসে ৫৩৮ জন সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন।

সরকার আশা করছে, প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে এখাতে বহুবিধ উন্নয়ন হবে এবং সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু কমে আসবে।


মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ