ঈদের ছুটি আরও ১ দিন বাড়ানোর সুপারিশ সরকারি কমিটির

ছুটি
  © সংগৃহীত

কয়েকদিন আগেই ঈদের ছুটি ঘোষণা করা হয়। তবে এবার ঈদের ছুটির সাথে সামঞ্জস্য রেখে সবার সুবিধার্থে ৯ এপ্রিল সরকারি ছুটি ঘোষণা করতে সুপারিশ করেছে আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।

রবিবার (৩১ মার্চ) সচিবালয়ে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি আগামী ৯ এপ্রিল ছুটি রাখার সুপারিশ করেছে বলে জানিয়েছে কমিটির সভাপতি মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

আ ক ম মোজাম্মেল হক গণমাধ্যমকে জানান, ছুটির সুপারিশ করা হলেও এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত আগামীকাল বৈঠকে নেওয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, যানজট যেন না হয় এবং শ্রমিকদের বেতন যেন যথাসময়ে দেওয়া সম্ভব হয় এজন্য ব্যাংক খোলা রাখার কথা বলা হয়। বন্ধের দিনও খোলা রাখে সুবিধা দিতে পারে ব্যাংক, যাতে শ্রমিকদের মধ্যে কোনো অসন্তোষ না হয়। শ্রমিকদের যাই প্রাপ্য থাকে সেগুলো যাতে সময় মতো পরিশোধ হয় সেজন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সোমবার মালিকদের সঙ্গে মিটিং করে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান তিনি।

জনাব মোজাম্মেল হক বলেন, ছুটির ব্যাপারে সোমবার একটা সুপারিশ যাবে সরকারের কাছে, একদিন বাড়ানো যায় কি না, যাতে মানুষ নির্বিঘ্নে যাতায়াত করতে পারে। ৯ এপ্রিল ছুটির আওতায় আনা যায় কি না, সেটার একটা সুপারিশ মন্ত্রিপরিষদে যাবে।  

মন্ত্রী আরও বলেন, আমরা সুপারিশ করেছি, যদি ১১ এপ্রিল ঈদ হয়, যাওয়ার জন্য একদিন মাত্র সময় পাবে। সেজন্য যানজট বাড়তে পারে, এতে মানুষের দুর্ভোগ বাড়বে। সেজন্য ৯ এপ্রিল ছুটি বিবেচনা করা যায় কি না এই সুপারিশ আমরা দেবো।

এর আগে ঈদযাত্রায় যানজট, যাত্রী হয়রানি ও সড়কে দুর্ঘটনায় প্রাণহানি কমাতে ৮ ও ৯ এপ্রিল ২ দিন ঈদের ছুটি বাড়ানোর দাবি জানায় বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি।

গত ২৭ মার্চ ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী এ দাবি জানান।


মন্তব্য