মানুষের মতো কথা বলছে কুকুর! সত্য প্রমাণিত রাসুল (সা.) এর বাণী

রাসুল (সা.)
  © সংগৃৃহীত

প্রাণীদের কথা বলার বিষয়টি রাসুল (সা.) ভবিষ্যতবাণী করে গেছেন। এটিই সত্য প্রমাণিত হচ্ছে। কথা বলার চেষ্টা করছে হিংস্র প্রাণী। একটি কুকুরের করা শব্দ চোখ বন্ধ করে কেউ শুনলে মনে হবে যেন কোন শিশু কথা বলার চেষ্টা করছে। কিন্ত আসলে তা না। এটি একটি কুকুরের শব্দ।

জানা গেছে, ঘেউ ঘেউ করার সময় কথা বলার মতো শব্দ করে ওই কুকুরটি। ৯ বছর বয়সী এই কুকুরের নাম সানি। ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে তার কথা বলার মতো এই শব্দ। ঘটনাটি ঘটেছে নেদারল্যান্ডের বাণিজ্যিক রাজধানী আমস্টারডামে।

সম্প্রতি ধারণ করা একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, গাড়িতে তার মালিকদের সঙ্গে কথা বলার মতো শব্দ করছে সানি। আর তার মালিক হাসছেন। এরপর সানির মালিক মারিয়া ডেলকে একটি গল্প বলতে শুনা যায়।

মারিয়া বলেন, কুকুরটি জন্মের পর স্বাভাবিক ছিল। কিন্তু তার বয়স ৪৫ দিন হওয়ার পর থেকে মানুষের মতো এই অদ্ভত শব্দ শুরু করে এবং এই কাজটি বেশি করে যখন আশেপাশে লোকজন দেখে। অনেক সময় সানির এই শব্দ শুনে মানুষ বিভ্রান্ত হয়ে যায়।

মারিয়া তার সুইজারল্যান্ড ভ্রমণের কথা স্মরণ করে বলেন, ওখানে পৌঁছানোর পর তিনি দেখেন লোকে পরিপূর্ণ একটি জায়গা। তখন সানি কথা বলার শব্দ শুরু করে। সুইজারল্যান্ডের লোকজন কুকুরটির এই আচরণ দেখে বেশ অবাক হয়েছিল এবং বিষয়টি উপভোগ করেছিল।

এরপর মারিয়া ডেল সানির এসব মজার ভিডিও শেয়ার করার জন্য একটি ইন্সট্রাগ্রাম এবং একটি টিকটক আইডি খোলেন। ইতোমধ্যে এসব আইডিতে ফলোয়ারের সংখ্যা লাখ ছাড়িয়েছে।

রাসুল (সা.) এর ভবিষ্যতবাণী:

পৃথিবীর বয়স যত বাড়ছে, মানুষ কেয়ামতের তত নিকটবর্তী হচ্ছে। রাসুল (সা.) তার হাদিসের মাধ্যমে কিয়ামতের অনেক নিদর্শনের বর্ণনা দিয়েছেন।

ইমাম আহমাদ (র.) আবু সাঈদ খুদরী (রা.) থেকে একটি হাসিদ বর্ণনা করেছেন। তিনি বলেন, ‘জনৈক রাখাল মাঠে ছাগল চরাচ্ছিল। হঠাৎ একটি নেকড়ে এসে একটি ছাগলের উপর আক্রমণ করলো। রাখাল বাঘের পেছনে ধাওয়া করে ছাগলটি ছিনিয়ে আনল। তখন বাঘটি একটি টিলার উপর বসে বলতে লাগল- তুমি কি আল্লাহকে ভয় করো না? আল্লাহ আমাকে একটি রিজিক দিয়েছিলেন। আর তুমি তা ছিনিয়ে নিলে। রাখাল বলল- কি আশ্চর্য্য ব্যাপার! মানুষের ন্যায় বাঘও আমার সঙ্গে কথা বলছে।

বাঘ বলল, আমি কি তোমাকে এর চেয়ে আশ্চর্য্যজনক খবর দেব না? মদিনায় রাসূল (সা.) অতীতে যা ঘটেছে এবং আগামীতে যা ঘটবে তা সম্পর্কে মানুষকে সংবাদ দিচ্ছেন।রাখাল তার ছাগলের পাল নিয়ে মদিনায় প্রবেশ করে ছাগলগুলো এক স্থানে রেখে রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের কাছে এসে ঘটনা খুলে বলল। ততক্ষণে নামাজের সময় হয়ে গেছে।

নামাজ শেষে রাসূল (সা.) রাখালকে বললেন, তুমি সবার সামনে ঘটনা খুলে বলো।

রাখাল ঘটনার বর্ণনা শেষ করলে নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, রাখাল সত্য বলেছে। ওই আল্লাহর শপথ! যার হাতে আমার প্রাণ। তত দিন পর্যন্ত কিয়ামত সংঘটিত হবে না যতক্ষণ না হিংস্র প্রাণী মানুষের সঙ্গে কথা বলবে। মানুষ তার হাতের লাঠির সঙ্গে কথা বলবে, পায়ের জুতার সঙ্গে কথা বলবে। এমনকি ঘরের স্ত্রী তার স্বামীর অনুপস্থিতে কী করছে শরীরের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ তাকে বলে দেবে।


মন্তব্য