ঢাকা-সিলেটে হবে নারী টি২০ বিশ্বকাপ, বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ যারা

সিলেট
  © সংগৃহীত

সিলেট থেকে হেলিকপ্টারে উড়িয়ে আনা হয় বাংলাদেশ ও ভারত নারী দলের দুই অধিনায়ক নিগার সুলতানা ও হারমনপ্রীত কৌরকে। রোববার ঢাকার একটি পাঁচ তারকা হোটেলে মেয়েদের টি ২০ বিশ্বকাপের সূচি প্রকাশ অনুষ্ঠানে তাদের সঙ্গে ছিলেন যুব ও ক্রীড়ামন্ত্রী ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হোসেন এবং আইসিসির প্রধান নির্বাহী জেফ অ্যালার্ডাইস। 

অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার কথা ছিল দুপুর ১২টায়। কিন্তু দেড় ঘণ্টা দেরিতে সেটা শুরু হয় দুপুর দেড়টায়। কারণ তার আগে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকতায় যুক্ত ছিল বিশ্বকাপের ট্রফি উন্মোচন পর্ব। সেখানে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরে অনাড়ম্বর আয়োজনে ২০২৪ নারী টি ২০ বিশ্বকাপের গ্রুপিং ও সূচি প্রকাশ করে আইসিসি। বাংলাদেশের দুটি শহর সিলেটের দুটি ভেন্যু ও ঢাকার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আগামী ৩ অক্টোবর শুরু হবে ১০ দলের এই টুর্নামেন্ট। বাংলাদেশ গ্রুপপর্বের সব ম্যাচই খেলবে মিরপুরে।

এ বছর অনুষ্ঠিতব্য নারীদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সূচি প্রকাশ করেছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা (আইসিসি)। এই বিশ্বকাপের স্বাগতিক বাংলাদেশ একরকম কঠিন গ্রুপে। “বি” গ্রুপে বাংলাদেশের নারীদের প্রতিপক্ষ শক্তিশালী দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার হিসেবে আসা একটি দল।

নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এটি হবে নবম আসর। ২০১৪ সালের পর আবারও নারী বিশ্বকাপ আয়োজন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। রবিবার (৫ মে) দুপুরে রাজধানীর একটি হোটেলে এই টুর্নামেন্টের সূচি ঘোষণা করা হয়েছে। সূচি অনুযায়ী, বিশ্বকাপের উদ্বোধনী দিনেই মাঠে নামবে বাংলাদেশ। ৩ অক্টোবরের ওই ম্যাচটিতে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ বাছাই পর্ব পার করে আসা গ্রুপের দলটি।

গত বছর রেকর্ড ষষ্ঠবারের নারী বিশ্বকাপের ট্রফি উচিয়ে ধরে অস্ট্রেলিয়া। এবার অজিরা পড়েছে ২০২০ সালের রানার্স আপ ভারতের গ্রুপে। “এ” গ্রুপে তাদের সঙ্গী নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান ও কোয়ালিফায়ার হিসেবে আসা একটি দল। সূচি অনুযায়ী প্রতিটি দল গ্রুপ পর্বে চারটি করে ম্যাচ খেলবে। প্রতিটি গ্রুপ থেকে শীর্ষ দুই দল যাবে সেমিফাইনালে।

১৯ দিন ধরে ঢাকা ও সিলেটের ভেন্যুতে ২৩টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। সেমিফাইনাল ও ফাইনালে রাখা হয়েছে রিজার্ভ ডে।


মন্তব্য