মহাশূন্যে ৮৭৮ দিন কাটিয়ে বিশ্ব রেকর্ড গড়লেন নভোচারী

আন্তর্জাতিক
  © সংগৃহীত

রাশিয়ার নভোচারী ওলেগ কোনোনেনকো মহাশূন্যে সবচেয়ে বেশি সময় অবস্থানের বিশ্ব রেকর্ড গড়েছেন।

রাশিয়ার মহাকাশ গবেষণা সংস্থা রসকোমস জানিয়েছে, মহাশূন্যে সবচেয়ে বেশি সময় অবস্থানের আগের রেকর্ডটি ছিল রাশিয়ারই মহাকাশচারী গিনাজি পাদোকার। তিনি ৮৭৮ দিন ১১ ঘণ্টা ২৯ মিনিট ৪৮ সেকেন্ড মহাশূন্যে অবস্থান করেছেন। তাকে পেছনে ফেলে ৮৭৮ দিন বা প্রায় আড়াই বছর মহাশূন্যে কাটানোর বিশ্ব রেকর্ড গড়লেন ৫৯ বছর বয়সী রুশ মহাকাশচারী কোনোনেনকো।

রবিবার স্থানীয় সময় সকাল ৮টা ৩০ মিনিটে কোনোনেনকো আনুষ্ঠানিকভাবে গিনাজির করা রেকর্ডটি ছাড়িয়ে যান। 

কোনোনেনকো ২০০৮ সালের এপ্রিলে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে গিয়েছিলেন। এর পর আরও কয়েকবার মহাকাশ অভিযানে গিয়েছেন। তার সর্বশেষ এই মহাশূন্য অভিযান শেষ হবে আগামী সেপ্টেম্বরে। আগামী ৫ জুন পর্যন্ত সব মিলিয়ে তার মহাশূন্যে কাটানো সময় দাঁড়াবে ১০০০ দিন এবং সেপ্টেম্বরের শেষে গিয়ে সেটি দাঁড়াবে ১ হাজার ১১০ দিন।

কোনোনেনকো এখন পৃথিবী থেকে ২৬৩ মাইল (৪২৩ কিলোমিটার) দূরের কক্ষপথে অবস্থান করছেন। আন্তর্জাতিক মহাশূন্য স্টেশন (আইএসএস) থেকে এক সাক্ষাৎকারে তিনি রুশ সংবাদমাধ্যম তাসকে বলেন, 'আমি রেকর্ড গড়ার জন্য নয়, আমি মহাশূন্যে উড়ি আমার পছন্দের জিনিসগুলো করতে।'

তিনি যোগ করেন, 'আমি আমার অর্জনগুলোর জন্য গর্বিত। তবে আমি আরও গর্বিত বোধ করছি এই কারণে যে মহাশূন্যে দীর্ঘসময় কোনো মানুষের অবস্থানের যেই রেকর্ড সেটি এখনও কোনো রুশ নভোচারীর দখলে।'

সাক্ষাৎকারে কোনোনেনকো মহাশূন্যে অবস্থানকালে সম্মুখীন হওয়া বিভিন্ন চ্যালেঞ্জের কথা তুলে ধরেন। এগুলোর মধ্যে শারীরিক চ্যালেঞ্জটি হলো নিজের ওজনশূন্যতা অনুভব করা। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার জন্য নিয়মিত অনুশীলন করতে হয়েছে তাকে।

কোনোনেনকো ৩৪ বছর বয়সে প্রথম আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের (আইএসএস) জন্য বাছাই করা নভোচারীদের একটি গ্রুপের অংশ হিসেবে প্রশিক্ষণ শুরু করেছিলেন।

তথ্য: দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া


মন্তব্য