জামিন পেলেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধামন্ত্রী ইমরান খান

ইমরান খান
  © ফাইল ছবি

২০২৩ সালে ক্ষমতাচ্যুত করার পর পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রীর নামে ১২০টির অধিক মামলা হয়। এর মধ্যে একটি মামলায় জামিন পেয়েছেন পাকিস্তানের বিশ্বকাপজয়ী এই সাবেক কাপ্তান। 

গতকাল বুধবার (১৫ মে) তিনি জামিন পান। তবে জামিন পেলেও কারাগার থেকে বের হতে পারবেন না তিনি। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ইমরান খানের আইনজীবী বলেন, বুধবার ইসলামাবাদে ইমরান খান জমি দুর্নীতির মামলায় জামিন পেয়েছেন। তবে অন্য দুই মামলায় জামিন না মেলায় তাকে এখনো কারাগারে থাকতে হবে। জেল থেকে বের হতে পারবেন না তিনি।

পাকিস্তানের সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী ও তার স্ত্রীকে গত সপ্তাহে নতুন এ মামলায় অভিযুক্ত করা হয়। অভিযোগে বলা হয়, ২০১৮ থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকাকালে এক আবাসন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে জমি উপহার নেন। তবে ইমরান খানের দাবি, তিনি কোনো ভুল করেননি। এজন্য তিনি ইসলামাবাদ হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন।

ইমরান খানের দলের আইনজীবী নাইম হায়দার পানজুথা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে এক পোস্টে জামিনের তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, আরও দুই মামলায় জামিন না মেলায় ইমরান খানকে কারাগারে থাকতে হবে। এর একটি হলো রাষ্ট্রীয় গোপন নথি ফাঁস এবং অন্যটি হলো ইসলামী আইন লংঘন করে বিয়ে করা।

গত বছরের আগস্ট থেকে কারাগারে রয়েছেন ইমরান খান। চারটি মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন তিনি। তবে এরই মধ্যে দুই মামলার সাজা স্থগিত করা হয়েছে।

পাকিস্তানের সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কয়েক ডজন মামলা রয়েছে। একইসঙ্গে তার স্ত্রী বুশরা বিবিও কারাগারে রয়েছেন। ২০১৮ সালে বেআইনিভাবে ইমরান খানকে বিয়ে করার অভিযোগ এনে কারাগারে রাখা হয়েছে তাকে।


মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ